মেহেরপুরে পরকিয়ার জের ধরে যুবককে কুপিয়ে হত্যা – মহিলা আটক

মেহেরপুর প্রতিনিধি ॥ মহেরপুর সদর উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের কলাইডাঙ্গা গ্রামের মাঠে  রানা হোসেন (৩৫) নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।  রানা কলাইডাঙ্গা গ্রামের বেলেপাড়ার হিছাব আলীর ছেলে। এ ঘটনায় জড়িত একই গ্রামের স্বামী পরিত্যক্তা সাহানুর খাতুন নামের এক মহিলাকে আটক করে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার বিকেলে মেহেরপুর সদর থানা পুলিশ নিহত রানার লাশ কলাইডাঙ্গা গ্রামের দাকুরগাড়ীর মাঠের জনৈক মামুন চৌধুরীর আমবাগান থেকে উদ্ধার করে। স্থানীয়রা জানান- স্বামী পরিত্যক্তা সাহানুর খাতুনের সাথে রানার অবৈধ সম্পর্ক ছিল। বিষয় জেনে যায় সাহানুর খাতুনের ছেলে ইব্রাহিম । গতকাল শুক্রবার বিকেলে ইব্রাহিম তার মাকে দিয়ে কৌশলে রানাকে  গ্রামের  দামুরগাড়ীর মাঠের জনৈক  মামুন চৌধুরীর আমবাগান ডেকে নেয়।   রানা ওই আমবাগানে পৌঁছালে আগে থেতে ওৎ পেতে থাকা ইব্রাহিম, একই গ্রামের আবু তালেবের ছেলে হেলাল ও মতিয়ার রহমানের ছেলে সোহাগ রানাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে লাশ ফেলে পালিয়ে যায়। গোপন সংবাদ পেয়ে মেহেরপুর সদর থানা পুলিশ সাহানুরকে আটক করে। মেহেরপুর সদর থানার ওসি (তদন্ত) মেহেদী হাসান জানান, লাশ উদ্ধার করে থানায় নেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় সাহানুর নামের এক মহিলাকে আটক করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত আরো কয়েকজনকে আটকের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।