কুমারখালীর শানপুকুরিয়ায় আব্দুল মান্নান খানের উঠান বৈঠক

কুমারখালী প্রতিনিধি ॥ উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা তথা দেশ ও মানুষের সার্বিক উন্নয়নের জন্য আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের নৌকায় ভোট  দেওয়ার আহবান জানিয়েছেন  কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল মান্নান খান। গতকাল শুক্রবার বিকালে উপজেলার চাপড়া ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উদ্যোগে শানপুকুরিয়া গ্রামে আয়োজিত উঠান বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যদানকালে উপস্থিত গ্রামবাসী ও আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের প্রতি তিনি এই আহবান জানান। বীর মুক্তিযোদ্ধা আক্কাস আলী মন্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উঠান বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, চাপড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, সাধারন সম্পাদক সেলিম হক, উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আশাদুর রহমান আশা।   এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগে সদস্য ও সাবেক পিপি এ্যাড. মোতালেব হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা জাহিদ হোসেন, চাঁদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি লিয়াকত আলী, সাধারন সম্পাদক নজরুল ইসলাম, বাগুলাট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজুল হক নোবা, সাধারন সম্পাদক আবু বক্কর, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক রাসেল হোসেন, শ্রমিক লীগের সাধারন সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন ও উঠান বৈঠক আয়োজনের অন্যতম আয়োজক নজরুল ইসলাম মাষ্টার প্রমুখ। বৈঠকে আওয়ামী লীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা ছাড়াও শানপুকুিরয়া গ্রামের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সাধারন মানুষ উপস্থিত ছিলেন। উঠান বৈঠকে আব্দুল মান্নান খান বলেন- আওয়ামী লীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, ঘরে বসে সময় অতিবাহিত না করে নিজেদের ব্যক্তিগত কাজের পাশাপাশি প্রতিনিয়ত সমন্বিতভাবে পাড়ায় মহল্লায় ঘুরে মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়ে নৌকা প্রতীকের জন্য ভোট প্রার্থনা করুন। কে মনোনয়ন পাবেন এবং কবে পাবেন, সেই দিন পর্যন্ত অপেক্ষায় না থেকে এখন থেকেই নৌকার সমর্থনে সর্বস্তরের মানুষকে উদ্বুদ্ধ করুন। আব্দুল মান্নান খান গ্রামবাসীদের উদ্দেশ্যে বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের নেতৃত্বে পদ্মসেতু নির্মাণের কাজ অনেকদুর এগিয়ে গিয়েছে এবং বঙ্গবন্ধু স্যাটালাইট উৎক্ষেপন করা হয়েছে। আপনারা তা টেলিভিশনে এবং পত্রিকায় দেখেছেন। দেশের উন্নয়নে এবং মানুষের প্রয়োজনে এ ধরণের অসংখ্য উদ্যোগ গ্রহণ করেছে বর্তমান সরকার। তাই আগামী নির্বাচনে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় পুণরায় নৌকায় ভোট দিয়ে এই সরকারকেই রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব দিতে হবে। আর এই সরকারকে আবারো ক্ষমতায় আনতে পারেন সাধারন ভোটাররা। এ সময় তিনি সরকারের কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য বিষয়ক উন্নয়ন ছাড়াও বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানী ভাতাবৃদ্ধি সহ বছরের প্রথম দিনে একযোগে দেশের সকল শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই প্রদান ও ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়া ও প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্র“তি অনুযায়ী দরিদ্র মানুষকে সরকারের অর্থায়নে ঘর তৈরী করে দেওয়ার কথাও উল্লেখ করেন।