কুষ্টিয়া পৌরসভায় কৃমি নিয়ন্ত্রন সপ্তাহ উপলক্ষে এ্যাডভোকেসি সভা

কুষ্টিয়া পৌরসভায় কৃমি নিয়ন্ত্রন সপ্তাহ উপলক্ষে এ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে কুষ্টিয়া পৌরসভার আয়োজনে পৌর অডিটোরিয়ামে স্কুল ছাত্র-ছাত্রীদের কৃমি নিয়ন্ত্রন সপ্তাহ উপলক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় কুষ্টিয়া পৌরসভার মেয়র আনোয়ার আলীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন কুষ্টিয়ার সিভিল সার্জন ডাঃ রওশন আরা বেগম। বিশেষ অতিথি ছিলেন কুষ্টিয়া পৌরসভার প্যানেল মেয়র-১ মতিয়ার রহমান মজনু, কুষ্টিয়া সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাঃ আব্দুল মোমেন, উপজেলা শিক্ষা অফিসার সাইদা সিদ্দিকা, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ফয়জুল হক ও পৌরসভার সচিব কামাল উদ্দিন। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া পৌরসভার কাউন্সিলর বদরুল ইসলাম, গোলাম মোস্তফা লাভলু, নুরজাহান, মমতাজ জাহান, সামসুন্নাহার (মায়া), স্যানেটারী ইন্সপেক্টর আব্দুর রহিম, টিকাদানকারী সুপারভাইজার গাজীউর রহমান, পৌরসভার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকসহ পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে কুষ্টিয়ার সিভিল সার্জন ডাঃ রওশন আরা বেগম  বলেন, ১ হতে ৭ অক্টোবর ২০১৮ ইং তারিখে ৫ বছর হতে ১৬ বছর বয়সী সমগ্র পৌর এলাকার স্কুল সমূহের ছাত্র-ছাত্রীদের বিনা মূল্যে কৃমিনাশক ঔষধ মেবেনডাজল-৫০০ মিঃ গ্রাঃ ভরাপেটে খাওয়ানো হইবে। এই কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রে যদি কোন সমস্যা হয় তাহলে আমাকে জানালে আমি এবং আমার দল সেখানে উপস্থিত হয়ে আপনাদের সার্বিক সহযোগিতা করবো। সভাপতির বক্তব্যে মেয়র আনোয়ার আলী বলেন, আপনারা যেভাবে প্রতিবার এই জাতীয় কৃমিনাশক ঔষধ খাওয়ানো কার্যক্রম সফলভাবে সম্পন্ন করেছে এবারও আপনাদের সহযোগিতায় এই কার্যক্রম সফলভাবে সমাপ্ত করতে পারবো। আপনাদের পৌরসভার পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতা করা হবে। মেয়র আরও বলেন, পৌর এলাকায় সরকারী-বেসরকারী ৯৫ টি স্কুলে ২৭,৬০৬ জন ছাত্র-ছাত্রীকে কৃমিনাশক ঔষধ খাওয়ানো  হবে। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলোয়াত করেন পৌরসভার পেশ ঈমাম আবুল কালাম আজাদ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন স্বাস্থ্য সহকারী দেবাশীষ বাগচী। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি